অ্যাসপ্যারাগাস পাস্তা

অ্যাসপারাগাস হলো সবুজ অথবা সাদা রঙের একধরনের সবজি। মূলত হাল্কা কষাটে স্বাদের এবং খেতে প্রায় অনেকটা কচি ডাঁটার মত, অ্যাসপারাগাস ইউরোপের গ্রীষ্ম ও বসন্তের রান্নাঘরে বহুল পরিমানে ব্যবহৃত। কলকাতায় আগে খুব কম পরিমাণে পাওয়া গেলেও বর্তমানে কিছু জায়গায় পাওয়া যায় এবং হোয়াইট-সস্ পাস্তার সঙ্গে খেতেও খুব ভালো লাগে। চলুন তাহলে দেরি না করে দেখে নিই হোয়াইট-সস্ সহ অ্যাসপারাগাস পাস্তার রেসিপি।

উপকরণ:-
  • পাস্তা ২৫০ গ্ৰাম। 
  • অ্যাসপারাগাস ১ আঁটি।
  • বড় রসুনের কোয়া ৩-৪ টি (কুঁচি করে কাটা)।
  •  ১টি ছোট সাইজের পিঁয়াজ(কুঁচি করে কাটা)।
  •  ময়দা ২-৩ টেবিল চামচ।
  • লেবুর রস ছোট কাপের ১কাপ।
  • দুধ ৫০০ মিলি.লিটার।
  • লাল কাঁচা লঙ্কা ৫-৬ টি (নিজেদের ঝাল খাওয়ার পরিমাণ অনুযায়ী লঙ্কা দেবেন)।
  • গোলমরিচ গুঁড়ো ৩ চা চামচ।
  • বাটার ছোট ২ টেবিল চামচ।
  • অলিভ অয়েল বড় ৩ টেবিল চামচ।
  • নুন স্বাদ মতো। 
পদ্ধতি:-

অ্যাসপারাগাস পাস্তা করতে গেলে প্রথমেই অ্যাসপারাগাস -এর নিচের অংশটি কেটে বাদ দিয়ে দিন এবং অ্যাসপারাগাস গুলিকে মাঝখান থেকে কেটে দুটি ভাগ করে নিন।

এরপর একটা বাটিতে কাটা অ্যাসপারাগাস -এর মধ্যে ১চা চামচ গোলমরিচের গুঁড়ো, ছোট ২ টেবিল চামচ লেবুর রস, বড় ১টেবিল চামচ অলিভ অয়েল ও অল্প নুন দিয়ে ভালো করে মাখিয়ে নিন।

এরপর একটা ওভেন ট্রে-তে অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল বিছিয়ে অ্যাসপারাগাস গুলিকে একটি একটি করে পরপর সাজিয়ে ২০০ ডিগ্ৰী টেম্পারেচারে রেখে ১০ মিনিটের জন্য ওভেনে দিয়ে দিন। অথবা নর্মাল প্যানেও অ্যাসপারাগাস সেদ্ধ হওয়া অবধি ভেজে নিতে পারেন।

এই সময়ে পাস্তার জন্য পরিমাণ মতো জল বেশি আঁচে গ্যাসে বসিয়ে দিন এবং ৫-৭ মিনিট পর জল বেশ টকবক করে ফোটার অপেক্ষা করুন।

জল বেশ ভালো করে ফুটে এলে ২৫০ গ্ৰাম পাস্তা দিয়ে দিন। এরপর খুব অল্প একটু নুন দিয়ে পাস্তা-কে ১০-১২ মিনিট কিংবা প্যাকেট-এর গায়ের সময় অনুযায়ী বেশি আঁচে ফোটান।

পাস্তা ও অ্যাসপারাগাস নিজ নিজ জায়গায় সিদ্ধ হবার সময়ের মধ্যে অন্য গ্যাসে একটি কড়াই চাপান ও কড়াই গরম হয়ে এলে তাতে ছোট ২ টেবিল চামচ বাটার ও বড় ২ টেবিল চামচ অলিভ অয়েল দিয়ে দিন। বাটার ও অলিভ অয়েল গরম হয়ে গেলে তাতে কুঁচি করে কেটে রাখা রসুন দিয়ে দিন এবং হালকা নাড়িয়ে নিন

রসুন হালকা বাদামি রঙের হয়ে গেলে কুঁচি করে কাটা পিঁয়াজ তাতে দিয়ে দিন এবং পিঁয়াজ ও রসুন হালকা নাড়াচাড়া করে মিশিয়ে নিন।

এরপর লাল কাঁচা লঙ্কা কুঁচি দিয়ে দিন এবং ভালো করে মিশিয়ে নিন।

২ টেবিল চামচ ময়দা দিয়ে দিন ও মিশিয়ে নিন।

ময়দা পিঁয়াজ, রসুন ও কাঁচা লঙ্কা-র সঙ্গে মেশানো হয়ে গেলে ৫০০ মিলিলিটার দুধ দিয়ে দিন ও সাথে সাথে পরিমাণ মতো নুন ও গোলমরিচের গুঁড়ো ও ৩ টেবিল চামচ লেবুর রস দিয়ে দিন এবং ভালো করে মিশিয়ে নিন। ময়দা দুধ ও বাটার এবং গুঁড়ো চীজ একসাথে ফোটালেই তৈরি হয় হোয়াইট সস্‌। এখানে চীজ ব্যবহার করা হয় নি।

এইসময় ১০ মিনিট হয়ে গেলে অ্যাসপারাগাস গুলিকে ওভেন থেকে বের করে কড়াইয়ে দিয়ে দিন ও হালকা ভাবে নাড়িয়ে নিন।

এইসময়ের মধ্যে পাস্তা সেদ্ধ হয়ে গেলে একটি বড় ছাঁকনি পাস্তার জল ঝরিয়ে নিন ও তা একেবারে কড়াইয়ে দিয়ে দিন।

একদম কম আঁচে পাস্তা-কে হালকা ভাবে ভালো করে নাড়িয়ে নিন।

এরপর একটা বাটিতে ঢেলে তাতে ১চা চামচ কাঁচা অলিভ অয়েল, গোলমরিচের গুঁড়ো ও ১চা চামচ লেবুর রস মিশিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন অ্যাসপারাগাস পাস্তা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *