মাশরুম কারি (Indian Style Mushroom Curry)

বাড়িতেই বানিয়ে নিন নতুন সুপারফুড মাশরুম। সহজেই পাওয়া যায় এমন এক জিনিস যা সবজি বলে পরিচিত হলেও কিন্তু আদতে একপ্রকার ছত্রাক। সে যাই হোক না কেন, খেতে ভাল হলেই ব্যাস। এর মধ্যে আছে ক্যান্সার এর সাথে লড়াই করার জন্য আন্টি-অক্সিডেন্ট, পেটের সমস্যা কমানোর জন্য ফাইবার এবং আর ও অনেক কিছু… তাহলে দেরি নয় বানিয়ে নিন মাশরুম কারি একেবারে বাঙ্গালী উপকরনে…

উপকরনঃ-

  • মাশরুম ২৫০ গ্রাম ( সরু সরু করে কাটা )। 
  • আলু  ১ টা মাঝারি সাইজের( ডুমো ডুমো করে কাটা)। 
  • পেঁয়াজ ১ টা ছোট সাইজের (কুঁচি করে কাটা)।
  • ২ কোয়া রসুন (বাঁটা)।
  • আদা ১ ইঞ্চি ( বাঁটা)। 
  • টমেট ১ টা ছোট সাইজের( কুঁচি করে কাটা)।
  • ক্যাপসিকাম ১/২ ( কুঁচি করে কাঁটা)। 
  • হলুদ গুঁড়ো ১ চা চামচ।
  • লঙ্কা গুঁড়ো ১ চা চামচ।
  • জিরে গুঁড়ো ১ চা চামচ।
  • চিনি ১/২ চা চামচ।
  • নুন (স্বাদ মতো)।
  • সাদা তেল ( রান্নার জন্য)। 

পদ্ধতিঃ-

মাশরুম ভালো করে ধুয়ে নিয়ে সরু সরু করে কেটে নিতে হবে।       

এরপর ডুমো ডুমো করে আলু কেটে নিন।  

এরপর গ্যাসে একটা কড়াই চপিয়ে তাতে তেল দিন। তারপর তেল গরম হয়ে গেলে তার মধ্যে গোটা জিরে ও তেজপাতা দিয়ে দিন।

জিরে ও তেজপাতা ভাজা হয়ে যাওয়ার পর কুঁচি কুঁচি করে কাটা পেঁয়াজ দিয়ে দিন।
হাল্কা নাড়িয়ে নিন। 

পেঁয়াজ ভাজা হয়ে যাওয়ার পর, আদা- রসুন এর পেস্ট দিয়ে দিন।

হাল্কা নাড়িয়ে দিন এবং হাল্কা কষানোর জন্য ১ মিনিটের জন্য ছেড়ে দিন।

১ মিনিট পর পিঁয়াজ , আদা-রসুন ভালো করে কষানো হয়ে গেলে, ছোট করে কেটে রাখা টমেটো দিয়ে দিন।

ভালো করে নাড়িয়ে নিন এবং ২ মিনিটের জন্য ঢাকা দিয়ে রাখুন।

এরপর ছোট ছোট করে কেটে রাখা আলু দিয়ে দিন।

আলু গুলি সিদ্ধ হওয়ার জন্য অল্প নুন দিয়ে দিন।

আলু গুলি ভাজা ভাজা হয়ে এলে সরু সরু করে কেটে রাখা মাশরুম কড়াই এ দিয়ে একটু নাড়িয়ে নিন। (মাশরুম সিদ্ধ করেও এই স্টেপ এবং পরের স্টেপগুলি ফলো করতে পারেন। যদি মাশরুম সিদ্ধ করে দেন, তাহলে একবার ভাল করে নাড়িয়েই জল দেবেন, কারন সিধধ মাশরুম এ জল থাকে না।)

এরপর একটু হলুদ গুঁড়ো, লঙ্কা গুঁড়ো, জিরে গুঁড়ো, নুন( স্বাদ মতো), চিনি (অল্প) দিয়ে হালকা নারা-চারা করে ঢাকা দিয়ে দেবেন।

মনে রাখবেন মাশরুম দিয়ে জল বের হয়, তাই কারি তে মশলা দেওয়ার পর জল প্রথমেই জল দেওয়ার প্রয়জন নেই

একটু পরে দেখবেন মাশরুম কারি থেকে জল বেরচ্ছে। এই সময় একটু নারিয়ে আবার ঢাকা  দিয়ে ভালো করে কষুন।

দশ মিনিট পরে দেখবেন একটু জলটা শুকিয়ে এসেছে, তখন একটু জল দিয়ে নাড়িয়ে অল্প আঁচে আবার ঢাকা দিয়ে রাখবেন।

কুড়ি মিনিট পরে যখন দেখেবেন মাশরুম, আলু দুটোই সিধ হয়ে গেছে, তখন আঁচ বারিয়ে হাল্কা হাতে আস্তে আস্তে নাড়া- চারা করবেন।

যখন জল হাল্কা শুকিয়ে আসবে, তখন কারির উপরে গরম মশলা গুঁড়ো ছরিয়ে দিয়ে হাল্কা নারিয়ে নিন।

এরপর বাটিতে সাজিয়ে পরিবেশন করুন। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *